ঢাকা, সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫


ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য প্রস্তুতি শুরু

২০১৮ নভেম্বর ০৯ ১২:৫৩:০০

বিজনেস আওয়ার ডেস্ক: সিলেটে প্রথম ম্যাচ জিতে ফুরফুরে মেজাজেই রয়েছে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল। সে তুলনায় মানসিক দিক থেকে খানিক পিছিয়েই থাকার কথা স্বাগতিক বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। টাইগার ক্রিকেটারদের প্রতিভা বা সামর্থ নিয়ে প্রশ্ন তোলার মানুষ পাওয়া যাবে না খুব একটা, তবে মানসিক শক্তিতে বাংলাদেশ দল কতোটা এগিয়ে সেটা হতে আলোচনার বিষয়।

তাই প্রথম ম্যাচের হারের ধকল কাটিয়ে মানসিকভাবে চাঙা হয়ে ফেরার লক্ষ্যে ঢাকায় ফিরে বৃহস্পতিবার বিশ্রামেই কাটিয়েছেন ক্রিকেটাররা। এর ফাঁকে সন্ধ্যায় বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক এবং বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খানের রেস্টুরেন্ট ‘ক্রিকেটার্স কিচেনে’র আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনে হাজির হয়েছিলেন মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও রুবেল হোসেন।

তবে আর বিশ্রাম নেই জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের। শুক্রবার দুপুরেই শুরু হয়ে যাচ্ছে দ্বিতীয় ম্যাচের প্রস্তুতি। প্রথম ম্যাচে হারের পরে দলের অধিনায়ক, কোচ থেকে শুরু করে অনেকেই বলেছেন দ্বিতীয় ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়াবে তারা। সেই ঘুরে দাঁড়ানোর প্রস্তুতিটাই শুরু শুক্রবার দুপুর থেকে।

আনুষ্ঠানিক অনুশীলন সূচিতে বলা আছে দুপুর দেড়টায় শুরু হবে বাংলাদেশ দলের অনুশীলন। কিন্তু শুক্রবার তথা জুম্মা বার হওয়ায় ঠিক দেড়টায় যে অনুশীলন শুরু হবে না তা বলেই দেয়া যায়। কেননা বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের মুসলিম ধর্মালম্বী খেলোয়াড়দের সবাই-ই ধর্মপ্রাণ এবং নিয়মিত নামাজ আদায় করেন।

শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের ভেতরেই ক্রিকেটার, কর্মকর্তা ও মাঠকর্মীদের নামাজ আদায়ের জন্য রয়েছে জামে মসজিদ। যেখানে খুৎবা সহকারে নিয়মিতই পড়ানো হয় জুম্মার নামাজ। আজ বাংলাদেশ দল সেখানেই নিজেদের জুম্মার নামাজ আদায় করতে পারেন। নতুবা টিম হোটেলের আশেপাশে কোনো মসজিদ থেকে জুম্মার নামাজ পড়ে তারপরে অনুশীলনে আসবেন তারা।

অন্যদিকে সিলেটে প্রথম টেস্টে অসাধারণ জয় পাওয়া জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দলও বিশ্রাম করেছে বৃহস্পতিবার। ঢাকা টেস্টেও সেই ধারাবাহিকতা বজায় রাখার লক্ষ্যে বাংলাদেশ দলের আগেই, শুক্রবার সকাল সাড়ে নয়টায় শুরু হয়ে গিয়েছে সফরকারীদের অনুশীলন।

বিজনেস আওয়ার/০৯ নভেম্বর, ২০১৮/আরএইচ

উপরে