sristymultimedia.com

ঢাকা, শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬


বেড়েছে ইলিশের সরবরাহ, দামও ক্রেতাদের নাগালে

১২:২৩পিএম, ১৯ জুন ২০১৯

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদকঃ প্রায় দেড় মাস পর কর্মচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে চাঁদপুর শহরের বড় স্টেশন মাছঘাটে। জেলেরা প্রতিদিন গড়ে ৩০০ থেকে ৪০০ মণ ইলিশ সরাসরি নিয়ে আসছেন এখানে। এতে ব্যবসায়ীদের মুখে হাসি ফুটেছে। ইলিশের দামও এখন অনেকটা ক্রেতাদের নাগালে রয়েছে।

চাঁদপুর বড় স্টেশন মাছঘাটের আড়ত ঘুরে জানা গেছে, চাঁদপুরের পদ্মা ও মেঘনার দেড় কেজি ওজনের ইলিশ প্রতি কেজি ১ হাজার ৫০০ থেকে ১ হাজার ৬০০ টাকায়, এক কেজি ওজনের ইলিশ ১ হাজার ২০০ টাকায়, ৮০০ থেকে ৯০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ ৮০০ থেকে ৯০০ টাকায় এবং ৫০০ থেকে ৬০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ ৬০০ থেকে ৭০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মাছঘাটে কয়েকজন ইলিশ ব্যবসায়ী বলেন, প্রায় দেড় মাস এই মাছঘাটে ইলিশের সরবরাহ ছিল খুবই কম। তিন-চার দিন ধরে দক্ষিণাঞ্চলের বরিশাল, ভোলা, হাতিয়া, সন্দ্বীপ, চরফ্যাশনসহ সাগর-সংলগ্ন মেঘনার মোহনার বিভিন্ন এলাকায় প্রচুর ইলিশ ধরা পড়ছে। জেলেরা এসব ইলিশ সরাসরি নিয়ে আসছে এখানে। এতে তাঁরা খুশি।

আড়তদার আশফাক বলেন, জাটকা রক্ষায় মার্চ-এপ্রিল দুই মাস চাঁদপুরের পদ্মা ও মেঘনায় সব ধরনের মাছ ধরা নিষিদ্ধ ছিল। ১ মে থেকে আবার মাছ ধরা শুরু হয়। কিন্তু গত দেড় মাস ইলিশের তেমন কোনো দেখা মেলেনি। তবে গত শুক্রবার থেকে জেলেরা ইলিশ নিয়ে আসতে শুরু করেন।

প্রায় দেড় মাস ধরে পদ্মা ও মেঘনা নদীতে জাল ফেলে তেমন ইলিশ পাননি জেলেরা। এতে তাঁরা চরম হতাশায় ভুগছিলেন। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা আশ্বস্ত করছিলেন, বৃষ্টি হলে চিত্র পাল্টাবে। সাগর থেকে ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ আসবে নদীতে। তাঁদের কথাই ঠিক হয়েছে। জেলেদের জাল ভরে যাচ্ছে রুপালি ইলিশে।

বিজনেস আওয়ার/১৯ জুন,২০১৯/আরআই

উপরে