ঢাকা, রবিবার, ২৫ আগস্ট ২০১৯, ১০ ভাদ্র ১৪২৬

উত্থানের শীর্ষে এক্সিম ব্যাংক, পতনে এবি

প্রথমার্ধের ব্যবসায় ৮০ শতাংশ ব্যাংকের ইপিএস বেড়েছে

২০১৯ আগস্ট ০১ ১০:৩৭:০৮

রেজোয়ান আহমেদ : চলতি বছরের প্রথমার্ধের ব্যবসায় (জানুয়ারি-জুন ১৯) শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ব্যাংক খাতের মুনাফায় উল্লম্ফন হয়েছে। এসময় ৮০ শতাংশ ব্যাংকের শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) বেড়েছে। যার পরিমাণ ২০১৮ সালের প্রথমার্ধে ছিল ৫০ শতাংশ ও ২০১৭ সালের একইসময়ে ছিল ৬২ শতাংশ।

ব্যাংকগুলোর ২০১৯ সালের প্রথমার্ধের অনিরীক্ষিত সমন্বিত আর্থিক হিসাব থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ৩০টি ব্যাংকের মধ্যে সবকয়টির চলতি বছরের প্রথমার্ধের আর্থিক হিসাব প্রকাশ করা হয়েছে। ৩০টি ব্যাংকের মধ্যে আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ২০১৯ সালের প্রথমার্ধে ২৪টি বা ৮০ শতাংশ ব্যাংকের ইপিএস বেড়েছে, ৫টি বা ১৬.৬৭ শতাংশ ব্যাংকের ইপিএস কমেছে এবং ১টি বা ৩.৩৩ শতাংশ ব্যাংকের শেয়ারপ্রতি লোকসান কমেছে।

সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ও অর্থনীতিবীদ এবি মির্জা আজিজুল ইসলাম বিজনেস আওয়ারকে বলেন, ব্যাংকগুলোর ইপিএসে এই উত্থান কিভাবে হয়েছে, সেটা আমার কাছে বোধগম্য না। কারন একদিকে ব্যাংকগুলো বলছে তাদের তারল্য সংকট ও খেলাপি ঋণের মাত্রা বেড়েছে। অন্যদিকে ইপিএস বাড়ছে। এখন দেখার বিষয় প্রভিশনিং ঘাটতি ও ট্যাক্স কম দেখানো হয়েছে কিনা। এ অবস্থায় বিনিয়োগকারীদেরকে শুধু ইপিএস না দেখে, অন্যান্য সূচক (ইন্ডিকেটর) যাছাই করে বিনিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নিতে হবে। বিশেষ করে খেলাপি ঋণের পরিমাণ ও প্রভিশনিং ঘাটতি আছে কিনা, তা দেখতে হবে। শুধুমাত্র একটি ইন্ডিকেটর দেখে বিনিয়োগে যাওয়া উচিত না।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) পরিচালক মিনহাজ মান্নান ইমন বিজনেস আওয়ারকে বলেন, ব্যাংক খাতের মুনাফায় উত্থান শেয়ারবাজারের জন্য সুসংবাদ। এতে হয়তো বিনিয়োগকারীদের মনে কিছুটা হলেও আস্থা ফিরে আসবে। যা শেয়ারবাজারে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। আর ব্যাংক খাত যেহেতু শেয়ারবাজারের সবচেয়ে বড় খাত, তাই এই খাতের উত্থান-পতনে সূচকে বড় প্রভাব পড়ে।

২০১৯ সালের প্রথমার্ধে সবচেয়ে বেশি হারে ইপিএস বেড়েছে এক্সিম ব্যাংকের। আগের বছরের তুলনায় ব্যাংকটির ইপিএস বেড়েছে ৩৩১ শতাংশ। এরপরে ১৫৯ শতাংশ বেড়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে আইএফআইসি ব্যাংক। আর ১২৬ শতাংশ বেড়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক।

এদিকে সবচেয়ে বেশি ইপিএস হয়েছে ডাচ-বাংলা ব্যাংকের। আগের বছরের থেকে ১৮ শতাংশ বেড়ে ব্যাংকটির ইপিএস হয়েছে ৩.৮৩ টাকা। এরপরে উত্তরা ব্যাংকের ইপিএস হয়েছে ২.৫০ টাকা। আর ২.২৫ টাকা নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে সাউথইস্ট ব্যাংক।

২০১৮ সালের প্রথমার্ধে ৩টি ব্যাংকের ইপিএস ২ টাকার বেশি হলেও এবার তা বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে। চলতি বছরের প্রথমার্ধে ২ টাকার উপরে ইপিএস অর্জন করা অন্য কোম্পানিগুলো হচ্ছে- ব্র্যাক ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক ও পূবালি ব্যাংক।

নিম্নে ইপিএস বৃদ্ধি পাওয়া ব্যাংকগুলোর আর্থিক অবস্থা তুলে ধরা হল-

ব্যাংকের নাম

২০১৯ সালের প্রথমার্ধের ইপিএস

২০১৮ সালের প্রথমার্ধের ইপিএস

বৃদ্ধির হার

(শতকরা)

এক্সিম ব্যাংক

০.৫৬ টাকা

০.১৩ টাকা

৩৩১%

আইএফআইসি ব্যাংক

১.০১ টাকা

০.৩৯ টাকা

১৫৯%

ফার্স্ট সিকিউরিটি ব্যাংক

০.৯৫ টাকা

০.৪২ টাকা

১২৬%

উত্তরা ব্যাংক

২.৫০ টাকা

১.৩৫ টাকা

৮৫%

ট্রাস্ট ব্যাংক

১.৭৭ টাকা

০.৯৮ টাকা

৮১%

সাউথইস্ট ব্যাংক

২.২৫ টাকা

১.৩৭ টাকা

৬৪%

প্রিমিয়ার ব্যাংক

১.৩৪ টাকা

০.৮৪ টাকা

৬০%

শাহজালাল ইসলামি ব্যাংক

১.২৪ টাকা

০.৯২ টাকা

৩৫%

দি সিটি ব্যাংক

১.৯১ টাকা

১.৪৪ টাকা

৩৩%

এনসিসি ব্যাংক

১.৩১ টাকা

১ টাকা

৩১%

প্রাইম ব্যাংক

০.৯০ টাকা

০.৭০ টাকা

২৯%

ওয়ান ব্যাংক

০.৫১ টাকা

০.৪০ টাকা

২৭%

ইস্টার্ন ব্যাংক

১.৯৫ টাকা

১.৫৫ টাকা

২৬%

আল-আরাফাহ ব্যাংক

০.৫১ টাকা

০.৪২ টাকা

২১%

ডাচ-বাংলা ব্যাংক

৩.৮৩ টাকা

৩.২৫ টাকা

১৮%

যমুনা ব্যাংক

১.৭৮ টাকা

১.৫২ টাকা

১৭%

ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক

১.১৫ টাকা

১.০৫ টাকা

১০%

ইসলামী ব্যাংক

২.০৫ টাকা

১.৮৮ টাকা

৯%

ঢাকা ব্যাংক

০.৭৬ টাকা

০.৭০ টাকা

৯%

মার্কেন্টাইল ব্যাংক

১.৭৯ টাকা

১.৬৯ টাকা

৬%

স্যোশাল ইসলামী ব্যাংক

০.৩৯ টাকা

০.৩৭ টাকা

৫%

মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক

১.৪১ টাকা

১.৩৬ টাকা

৪%

পূবালী ব্যাংক

২.১৬ টাকা

২.১১ টাকা

২%

ব্যাংক এশিয়া

১.০৬ টাকা

১.০৪ টাকা

২%

.

আলোচিত সময়ে সবচেয়ে বেশি ইপিএস কমেছে ‘জেড’ ক্যাটাগরির এবি ব্যাংকের। ব্যাংকটির ৬২ শতাংশ ইপিএস কমেছে। এরপরে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২০ শতাংশ কমেছে রূপালি ব্যাংকের। আর ১৬ শতাংশ কমে ৩য় স্থানে রয়েছে ন্যাশনাল ব্যাংক।

নিম্নে ইপিএস হ্রাস পাওয়া ব্যাংকগুলোর আর্থিক অবস্থা তুলে ধরা হল-

ব্যাংকের নাম

২০১৯ সালের প্রথমার্ধের ইপিএস

২০১৮ সালের প্রথমার্ধের ইপিএস

কমার হার

(শতকরা)

এবি ব্যাংক

০.১৫ টাকা

০.৩৯ টাকা

(৬২%)

রূপালি ব্যাংক

০.২৮ টাকা

০.৩৫ টাকা

(২০%)

ন্যাশনাল ব্যাংক

০.৪২ টাকা

০.৫০ টাকা

(১৬%)

স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক

০.০৯ টাকা

০.১০ টাকা

(১০%)

ব্র্যাক ব্যাংক

২.০৫ টাকা

২.১৭ টাকা

(৫%)

অন্যান্য বছরের প্রথমার্ধের ন্যায় ২০১৯ সালের প্রথমার্ধেও আইসিবি ইসলামিক ব্যাংকের লোকসান হয়েছে। তবে এ বছর ব্যাংকটির লোকসান ৬ শতাংশ কমে হয়েছে ০.২৯ টাকা।

নিম্নে লোকসানি ব্যাংকের তথ্য তুলে ধরা হল-

ব্যাংকের নাম

২০১৯ সালের প্রথমার্ধের ইপিএস

২০১৮ সালের প্রথমার্ধের ইপিএস

কমার হার

(শতকরা)

আইসিবি ইসলামিক ব্যাংক

(০.২৯) টাকা

(০.৩১) টাকা

৬%

বিজনেস আওয়ার/০১ আগস্ট, ২০১৯/আরএ

উপরে