ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬

মুনাফার ১৯ শতাংশ পাবে শেয়ারহোল্ডাররা

ইভিন্স টেক্সটাইলের শেষ প্রান্তিকে লোকসান

২০১৯ সেপ্টেম্বর ১৯ ১১:১৩:২৮

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত ইভিন্স টেক্সটাইলের ২০১৮-১৯ অর্থবছরের শেষ প্রান্তিকের ব্যবসায় লোকসান হয়েছে। যে কোম্পানিটিতে আগের অর্থবছরে মুনাফার শতভাগ রেখে দিলেও এ অর্থবছর তার কোন সুফল হয়নি। এরপরেও কোম্পানিটির পর্ষদ ২০১৮-১৯ অর্থবছরের ব্যবসায় অর্জিত মুনাফার মাত্র ১৯ শতাংশ শেয়ারহোল্ডারদের মাঝে লভ্যাংশ আকারে বিতরন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

কোম্পানিটির ২০১৮-১৯ অর্থবছরে শেয়ারপ্রতি ১.০৭ টাকা হিসেবে মোট ১৬ কোটি ৯৭ লাখ টাকা মুনাফা হয়েছে। এরমধ্য থেকে ২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ আকারে শেয়ারপ্রতি ০.২০ টাকা হিসাবে শেয়ারহোল্ডারদের মাঝে ৩ কোটি ১৭ লাখ টাকা বিতরন করা হবে। অর্থাৎ লভ্যাংশ প্রদান অনুপাত হবে ১৯ শতাংশ।

অন্যদিকে ১০ শতাংশ বোনাস আকারে শেয়ারপ্রতি ১ টাকা হিসাবে মোট ১৫ কোটি ৮৪ লাখ টাকার বোনাস শেয়ার দেওয়া হবে। এতে কোম্পানি থেকে শেয়ারহোল্ডারদের কোন ধরনের সম্পদ দিতে হবে না। তবে শেয়ারহোল্ডারদের বিও হিসাবে শেয়ার এবং কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন বাড়বে। মুনাফার অতিরিক্ত ২ কোটি ৪ লাখ টাকা রিজার্ভ থেকে বিয়োগ হবে।

আরও পড়ুন...
আরগন ডেনিমসের মুনাফার ৬৭ শতাংশই কোম্পানিতে রাখার সিদ্ধান্ত

কোম্পানিটির ২০১৮-১৯ অর্থবছরের ৯ মাসে (জুলাই ১৮-মার্চ ১৯) নিট ১৭ কোটি ৪৯ লাখ টাকা বা শেয়ারপ্রতি ১.১০ টাকা মুনাফা হয়েছিল। বছর শেষে এই মুনাফার পরিমাণ কমে দাঁড়িয়েছে ১৬ কোটি ৯৭ লাখ টাকায় বা শেয়ারপ্রতি ১.০৭ টাকায়। এ হিসাবে কোম্পানিটির শেষ প্রান্তিকে লোকসান হয়েছে ৫২ লাখ টাকা বা ০.০৩ টাকা।

এদিকে গত অর্থবছরে শেয়ারহোল্ডারদের কোন লভ্যাংশ না দিয়ে অর্জিত মুনাফার শতভাগ কোম্পানিতে রেখে দিলেও ব্যবসায় উন্নতি হয়নি। আগের অর্থবছরের ১৬ কোটি ৮৮ লাখ টাকার মুনাফা এ বছর হয়েছে ১৬ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। ফলে ওই অর্থবছরে মুনাফার সবটুকু রেখে দিলেও সেখান থেকে কোন সুফল আসেনি।

১৫৮ কোটি ৪০ লাখ টাকা পরিশোধিত মূলধনের ইভিন্স টেক্সটাইলে ৭০ কোটি ৩৯ লাখ টাকার রিজার্ভ রয়েছে।

উল্লেখ্য বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) লেনদেন শেষে ইভিন্স টেক্সটাইলের শেয়ার দর দাড়িঁয়েছে ১২.৩০ টাকায়।

বিজনেস আওয়ার/১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯/আরএ

উপরে