sristymultimedia.com

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬


লোকমানের পক্ষে সাফাই গাইলেন পাপন

১০:২৩এএম, ০৬ অক্টোবর ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক : লোকমান এখন আইনের হাতে বন্দী। ক'দিন আগেও দাপটের সঙ্গে চলতেন। বিসিবিতে প্রভাব রাখতেন। তার উত্থানটা সিনেমার গল্পের মতো।

লোকমানের এক অঙ্গে বহুরূপ। একসময় খালেদা জিয়ার মাথার উপর ছাতা ধরতেন নিরাপত্তা কর্মী হিসেবে। খোলস পাল্টে বিসিবি সভাপতি পাপনের সবচেয়ে আস্থাভাজনের একজন।

প্রশ্নটা তীর এখানেই ধেয়ে আসে। বিসিবি সভাপতিও লোকমানের মতো বন্ধুকে আগলে রাখতেন। এমনকি, ধরা পড়ার পরও তার পক্ষে সাফাই গাইলেন।

অভিযুক্ত পরিচালক লোকমান হোসেন ভূঁইয়ার ব্যাপারে এখনো নীরব ভূমিকায় ক্রিকেট বোর্ড। লোকমান বহাল আছেন বিসিবি'র পরিচালক পদে। শাস্তি দেওয়া তো দূরের কথা, উল্টো তার পক্ষে সাফাই গাইছেন বোর্ড সভাপতি।

পাপন বলেন, আমি যে লোকমানকে চিনি, সে জীবনে কোন দিন মদ খায় নাই। সে জীবনে কোন দিন জুয়া খেলে নাই। লোকমান আমাকে জীবন কোন দিন বলে নাই যে মোহামেডান ক্লামে একটা ক্যাসিনো আছে, এটা একটি আশ্চার্য। ও কিন্ত আমার বন্ধু।

বিসিবি পরিচালক আলমগীর হোসেন আলো বলেন, বিসিবিতে যে একজন ভদ্র মানুষ। সে আসে পরিচালক হিসেবে। তাছাড়া একজন পরিচালক না থাকলে কি কাজ চলবে না, এখানে বিব্রত হওয়ার কি আছে।

বিসিবি'তে লোকমান কাণ্ডের প্রভাব পড়ছে। আরেক পরিচালক মাহবুব আনামকে দু'দকের কাছে সম্পদের হিসাব দিতে হচ্ছে। গুঞ্জন আছে, প্রভাবশালী পরিচালক ইসমাইল হায়দার মল্লীকও গা ঢাকা দিয়েছেন।

আলমগীর হোসেন আলো বলেন, কেউ চিকিৎসায় যেতে পারে, আবার কেউ ব্যবসায়ের কাজে যেতে পারে। সুতরাং এটা তো কোন সমস্যা না।

ইসমাইল হায়দার মল্লীক বোর্ডের নানা কমিটির সঙ্গে এ পরিচালকরা যুক্ত থাকায় বাঁধাগ্রস্থ হচ্ছে বিসিবি'র নিয়মিত কর্মকান্ড। সময়মত অনুষ্ঠিত হয়নি বিপিএল সভা। এমনকি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতনভাতা হয়েছে কয়েকদিন বিলম্বে।

বিসিবির সাবেক পরিচালক জামিল বলেন, এই যে ক্লাবের এসব কর্মকাণ্ড এবং যারা বিপিএলের দায়িত্বে ছিলেন। আমরা পেপারে দেখেছি, আপনারও তাদের মুঠোফোনে খুঁজে পাচ্ছে না। তাছাড়া এখন পর্যন্ত তাদের অবস্থান জানা যাচ্ছে না। এসব কারণে বিপিএল হুমকির মুখে।

কিন্তু, বিসিবি এখনো নির্বিকার। ব্যক্তিগতভাবে একেকজন একেকভাবে মন্তব্য করলেও হয়নি কোনো বোর্ড সভা। অভিযুক্ত লোকমান এখনো কিভাবে স্বপদে বহাল থাকেন। সে প্রশ্নও উঠেছে।

বিসিবির সাবেক পরিচালক জামিল বলেন, যতক্ষণ না পর্যন্ত ওনার এই বিষয়টা পরিস্কার হচ্ছে। ততদিন পর্যন্ত ওনার সদস্য পদ স্থগিত থাকবে। এটা করা যেতেই পারে।

বিজনেস আওয়ার/০৬ অক্টোবর, ২০১৯/এ

উপরে