sristymultimedia.com

ঢাকা, শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬


পুলিশের সাথে সংঘর্ষে আবরারের ছোট ভাই, ভাবীসহ আহত ৩

০৯:৫২পিএম, ০৯ অক্টোবর ২০১৯

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদকঃ বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদের বাড়িতে পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে তার ছোটভাই ফায়াজ এবং তার ফুফাতো ভাইয়ের স্ত্রী তমা আহত হয়েছেন।

বুধবার (৯ অক্টোবর) দুপুরে বুয়েট ভিসি অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম আবরারদের গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়ায় গেলে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বুধবার বুয়েট ভিসি আবরারের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে এবং তার কবর জিয়ারত করতে গেলে এলাকাবাসী বিক্ষোভ দেখায়। এসময় ভিসিকে আবরারের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে বাধা দেয় এলাকাবাসী। একারণে বুয়েট ভিসি কবর জিয়ারত শেষে আবরারের বাড়িতে ঢুকতে পারেননি। এরপর ভিসি ফেরার জন্য গাড়িতে উঠে রওয়ানা হলে রাস্তা রোধ করে শুয়ে পড়েন আবরারের ফুফাতো ভাইয়ের স্ত্রী তমা। এসময় নারী পুলিশ সদস্যরা তাকে সেখান থেকে সরিয়ে নেয়ার সময় ধস্তাধস্তি হয়। এসময় পুলিশ তমাকে মারপিট করছে বলে খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকাবাসীর মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়; তারা ভিসির ওপর চড়াও হন। এসময় পুলিশ উত্তেজিত জনতাকে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করলে ধস্তাধস্তিতে আবরার ফাহাদের ভাই ফায়াজসহ তিনজন আহত হন।

ফায়াজ বলেন, এখানকার দায়িত্বে থাকা অ্যাডিশনাল এসপি (অতিরিক্ত পুলিশ সুপার) মোস্তাফিজুর রহমান আমার বুকে কনুই দিয়ে আঘাত করেন এবং কালকেও যখন আমার ভাইয়ের জানাজা হয় তখন তিনি বলেছিলেন দুই মিনিটের মধ্যে জানাজা শেষ করতে হবে। আজ এখানে আমার ভাবি ছিল, তাঁকে বেধড়কভাবে পুলিশ দিয়ে মারা হয়েছে। তার কাপড়-চোপড় টেনে তাঁর শ্লীলতাহানি পর্যন্ত করা হয়েছে। এটা বাংলাদেশের কোন ধরনের পুলিশ?

পুলিশ সুপার এসএম তানভির আরাফাত বলেন, আমরা কাউকে আঘাত করিনি। শুধুমাত্র এলাকায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্থে সবাইকে শান্ত করার চেষ্টা করেছি।

বিজনেস আওয়ার/৯ অক্টোবর, ২০১৯/আর

উপরে