sristymultimedia.com

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬


কৃষক লীগের সম্মেলন আজ, নেতৃত্বে পরিবর্তন আসছে

০৮:১৯এএম, ০৬ নভেম্বর ২০১৯


বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনে কৃষক লীগের ১০ম জাতীয় সম্মেলন আজ। বুধবার (৬ নভেম্বর) রাজধানী ঢাকার ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সকাল ১১টায় এ সম্মেলন শুরু হবে।

উদ্বোধন করবেন কৃষক লীগের সাংগঠনিক নেতা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সাত বছর পর অনুষ্ঠেয় এই সম্মেলনকে ঘিরে দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে উৎসাহ উদ্দীপনা দেখা দিয়েছে।

নেতা-কর্মীরা ভাবছেন, স্বচ্ছ ভাবমূর্তির নেতাদেরই সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটিতে নির্বাচন করা হবে। ইতোমধ্যে সম্মেলনের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে কৃষক লীগ।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, এ সম্মেলনে সাত হাজার কাউন্সিলর ও ৯ হাজার ডেলিগেট যোগ দেবেন। থাকবেন দু’জন বিদেশি অতিথিও। সম্মেলনের লক্ষ্যে গঠনতন্ত্র সংশোধনের খসড়াও চূড়ান্ত করা হয়েছে। সম্মেলন ঘিরে নেওয়া হয়েছে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

এবার কৃষক লীগের সভামঞ্চটি এমন ভাবে তৈরি করা হয়েছে যাতে ফুটে উঠবে গ্রামীণ পরিবেশ। আয়োজক সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী যখন মঞ্চে বসবেন তখন মনে হবে তিনি গ্রামের কোনও কৃষকের বাড়িতে বসে আছেন।

ঘরটা করা হয়েছে প্লাস্টিকের টিন দিয়ে, যার ডানে-বামে জানালা আছে। মঞ্চে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশাল আকারের ছবি শোভা পাচ্ছে।

দেশে কৃষির উন্নয়ন এবং কৃষকের স্বার্থরক্ষার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭২ সালের ১৯ এপ্রিল কৃষক লীগ প্রতিষ্ঠা করেন। সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সম্মেলন হয় সর্বশেষ ২০১২ সালের ১৯ জুলাই।

কৃষক লীগের আগামীকালের সম্মেলনে থাকছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানও। প্রথম সেশনে শোক প্রস্তাব, সাধারণ সম্পাদকের রিপোর্ট, প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথির বক্তব্যের পর খাবার বিরতির প্রাক্কালে চলবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

বিকাল তিনটায় শুরু হবে কাউন্সিল অধিবেশন। এ অধিবেশন থেকে কৃষক লীগের নতুন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষণা করা হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

এবার নেতৃত্ব প্রত্যাশীদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট, লেনদেন, পরিবার সদস্যদের রাজনৈতিক সংশ্লিষ্টতা, দলে অবদান, শিক্ষাগত যোগ্যতাসহ নানা বিষয়ে ইতোমধ্যেই খোঁজ-খবর নেওয়া হয়েছে। কৃষক লীগের শীর্ষ দুই পদে ক্লিন ইমেজের ব্যক্তিদেরই করা হবে।

আওয়ামী লীগের নেতারা বলছেন, কৃষকদের সঙ্গে নিবিড় সম্পর্ক, দক্ষ কৃষক সংগঠকদের কৃষক লীগের নেতৃত্বে রাখা হবে। যাদের সঙ্গে তৃণমূলের কৃষকদের সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে তাদেরই আগামীর নেতৃত্বে রাখা হবে। নতুন নেতৃত্বে আলোচনায় রয়েছেন প্রায় দেড় ডজন নেতা।

বর্তমান সভাপতি মোতাহার হোসেন মোল্লা আবারও একই পদে থাকতে চান। তিনি সেভাবেই লবিং তদবির শুরু করেছেন। সাধারণ সম্পাদক শামসুল হক রেজা সংগঠনের সভাপতির পদে আসতে চান।

এ ছাড়াও এ পদে আসতে চান বর্তমান কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি খান আলতাফ হোসেন ভুলু, শেখ মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, বদিউজ্জামান বাদশা, হারুনুর রশিদ হাওলাদার, বর্তমান সহ-সভাপতি শরীফ আশরাফ আলী, ওমর ফারুক।

এ ছাড়াও সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সারোয়ার ওয়াদুদ চৌধুরীও আলোচনায় রয়েছেন। সাধারণ সম্পাদক পদে জোর আলোচনায় আছেন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ সমীর চন্দ চন্দ্র, সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন সুইট, আবুল হোসেন, আতিকুল হক আতিক, বিশ্বনাথ সরকার বিটু।

এ ছাড়া কৃষক লীগের বর্তমান কমিটির আরও কয়েকজন শীর্ষ দুই পদের জন্য ভিতরে ভিতরে লবিং করলেও প্রকাশ্যে প্রার্থিতার কথা বলছেন না।

বিজনেস আওয়ার/০৬ নভেম্বর, ২০১৯/এ

উপরে