businesshour24.com

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারি ২০২০, ৮ মাঘ ১৪২৬


টাকার কারণেই মিরপুরে জোড়া খুন

০৪:২৯পিএম, ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : অসামাজিক কাজের টাকার ভাগাভাগির কারণেই মিরপুরে রহিমা বেগম (৬৫) ও সুমী আক্তার (২০) খুন করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা বিভাগ। বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) দুপুরে ডিএমপি'র মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান ডিএমপি'র অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ডিবি) মো. আবদুল বাতেন।

তিন বলেন, ২ ডিসেম্বর রাতে মিরপুর সেকশন-২ এর একটি বাড়ির চতুর্থ তলার ফ্ল্যাটে রহিমা বেগম (৬৫) ও সুমী আক্তার (২০) নামের দু-জনের মরদেহ উদ্ধার করে মিরপুর মডেল থানা পুলিশ। এ জোড়া খুনের ঘটনা তদন্তকালে ডিবি পশ্চিম জানতে পারে, গ্রেফতারকৃত দুইজন অসামাজিক কাজ করতে ওই ফ্ল্যাটে যায়। পরবর্তী সময়ে টাকা নিয়ে তাদের মধ্যে বাদানুবাদ হয়।

এতে ওই বাসায় একজন রুমে, অন্যজন বারান্দায় রাতযাপন করে। সকালেও টাকা নিয়ে ঝামেলা ও তাদেরকে মারধর করতে পারে, এমনটা ভেবে সুমীকে গলা চেপে ধরে একজন। এক পর্যায়ে সুমীর মৃত্যু হয়।অভিযুক্তদের একজন রহিমা বেগমকে কল করে বলে, সুমী অজ্ঞান হয়ে গেছে আপনি রুমের বাইরে আসুন।

তাদের ডাকে রহিমা বেগম রুমের বাইরে আসলে তাকেও গলা চেপে হত্যা করে তারা। পালিয়ে যাওয়ার সময় মোবাইল ফোন, ১৪ হাজার টাকা, সোনা ভেবে ইমিটেশনের তিনটি চেইন ও একটি কানের দুল নিয়ে যায়।

গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে ভিকটিমের ব্যবহৃত একটি মোবাইল, ১৪ হাজার টাকা, ইমিটেশনের তিনটি চেইন ও একটি কানের দুল উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় রহিমার পালক পুত্র সোহেলকে হেফাজতে নিলেও প্রাথমিক জিজ্ঞাসার পর তাকে ছেড়ে দেয় পুলিশ।

এর আগে, মঙ্গলবার রাতে মিরপুর-২ নম্বর সেকশনের 'এ' ব্লকের ২ নম্বর সড়কের ৯ নম্বর বাড়ির চতুর্থ তলা থেকে তাদের দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সেদিন রাতেই বৃদ্ধার মেয়ে রশিদা বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। এ ঘটনায় বুধবার (৪ ডিসেম্বর) রাতে দু'জনকে গ্রেফতার করেছে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পশ্চিম বিভাগের একটি টিম। গ্রেফতারকৃতদের একজনের নাম ইউসুফ খান, অন্যজন অপ্রাপ্তবয়স্ক।

বিজনেস আওয়ার/০৫ ডিসেম্বর, ২০১৯/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

সিএএ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী
'বুঝতে পারছি না কেন ভারত এটা করল'

নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তনের দাবি
শাহবাগে ফের বিক্ষোভ, কঠোর কর্মসূচীর হুঁশিয়ারি

উপরে