করোনাভাইরাস লাইভ আপডেট
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
৫৬
২৬
সূত্র:আইইডিসিআর
বিশ্বজুড়ে
দেশ
আক্রান্ত
মৃত্যু
১৮০
৯৮১২২১
৫০২৩০
সূত্র: জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি ও অন্যান্য।

ঢাকা, শুক্রবার, ৩ এপ্রিল ২০২০, ২০ চৈত্র ১৪২৬


'১৯শে মার্চ' চলচ্চিত্রের মহরত অনুষ্ঠিত

০৪:১৬পিএম, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

বিনোদন প্রতিবেদক : শিল্প, সাহিত্য ও সাংস্কৃতির সবচেয়ে বড় প্লাটফর্ম হলো চলচ্চিত্র। এটি এমন একটি গণমাধ্যম, যেখানে দেশের মানুষের চিন্তা-চেতনা আশা -আকাঙ্ক্ষা আর জীবন বোধের প্রতিফলন হয়। বাঙালির হাজার বছরের সর্বশ্রেষ্ঠ কীর্তি হলো মুক্তিযুদ্ধ তাই স্বাভাবিক ভাবেই এ দেশের চলচ্চিত্রে এটা উঠে আসার কথা।

তবে দুঃখ জনক হলেও সত্য যে হাতেগোনা কয়েকটি ছাড়া এ দেশের চলচ্চিত্রে মুক্তিযুদ্ধের উজ্জ্বল প্রতিফলন পাওয়া যায় না। অবশ্য গর্ব করার মতো বিষয় হলো মুক্তিযুদ্ধ শুরুর পূর্বেই এ দেশে স্বাধীনতার ইঙ্গিত নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মিত হয়েছিল। তাই মুক্তিযুদ্ধের চলচ্চিত্র নিয়ে আছে গর্ব ও অহংকার।

তবে এবার স্বাধীনতার মুক্ত চেতনা নিয়ে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র নির্মান করতে যাচ্ছেন তরুন চলচ্চিত্র ও নাট্য নির্মাতা আজাদ আল মামুন। গাজীপুরের মুক্তিযুদ্ধের পটভূমি নিয়ে নির্মিতব্য এ চলচ্চিত্রের নামকরন করেছেন '১৯ শে মার্চ'। গতকাল বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় ঢাকা রিজেন্সি হোটেলে বর্নাঢ্যভাবে '১৯শে মার্চ' চলচ্চিত্রের মহরত অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী জনাব আ ক ম মোজাম্মেল হক। বিশেষ অতিথি হিসাবে ছিলেন সাবেক ডাকসু ভিপি ও গাজীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আখতারুজ্জামান,গাজীপুরের বীর মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধ পরিবারের সদস্যগন,অভিনেত্রী রেবেকা, অভিনেতা ও নির্মাতা নয়ন মিল্টন, মাহমুদুর রহমান মিঠু, অনুভব, হারুন অর রশিদ সহ বড় ও ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা ও অভিনেত্রী।

অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক রণাঙ্গনে ১৯শে মার্চ এর ঘটনাবহুল ইতিহাস তুলে ধরেন। পাশাপাশি নির্মাতা আজাদ আল মামুন কে সাধুবাদ জানান এমন সৎ সাহস ও উদ্দীপনা নিয়ে মুক্তিযুদ্ধে গাজীপুর এর ইতিহাস কে এভাবে তুলে ধরার জন্য।

নির্মাতা আজাদ আল মামুন বলেন, নির্মাতারা মুক্তিযুদ্ধের গল্প খুজে পান না অথচ বাংলাদেশের প্রতিটি অঞ্চলে ছড়িয়ে আছে মুক্তিযোদ্ধা পরিবার শুধুমাত্র এদের এবং অঞ্চল ভিত্তিক মুক্তিযুদ্ধের পটভূমি নিয়েও হাজার হাজার চলচ্চিত্র তৈরি করা যায়।

কেক কাটার মধ্যদিয়ে "১৯শে মার্চ" চলচ্চিত্রের মহরত অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করা হয়।

বিজনেস আওয়ার/০৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০/এফ/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে