ঢাকা, সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০, ১৬ চৈত্র ১৪২৬


'মির্জা ফখরুলকে আর নিচে নামাতে চাই না'

০২:৫২পিএম, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা বিবেচনা করে মুক্তি দেওয়ার ব্যাপারে ফোন করে আমাকে অনুরোধ করেছিলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তার সঙ্গে কথা বলার পর আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছি।

কিন্তু উনি আজ বলেছেন, ফোন করার ব্যাপারটি মিথ্যা। আপনি ফোন করেছেন সেটা আমি বলেছি। এটাকে মিথ্যা বলার কারণ কী আমি বুঝলাম না। প্রমাণ যদি দিতে হয় তাহলে প্রমাণ দেওয়ার ব্যবস্থা আছে আমার কাছে। আমি উনাকে নিচে নামাতে চাই না। কিন্তু উনি কেন নিচে নামছেন সেটাই বুঝতে পারছি না।

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউর আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলটির খুলনা বিভাগীয় অঞ্চলের সঙ্গে বিশেষ যৌথ সভায় এসব কথা বলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, মির্জা ফখরুল সাহেব কী বলেছেন সেটা আমিও বলবো না। মিথ্যা কথা কেন বলবো? মির্জা ফখরুল সাহেব আমাকে ফোন করেছেন, ফোন করে অনুরোধ করেছেন। খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একটু কথা বলার জন্য। আমাকে তিনি বলেছেন, আমি প্রধানমন্ত্রীকে বিষয়টি জানিয়েছি।

তিনি বলেন, অসত্য কথা কেন বলবো। তিনি আমাকে অনুরোধ করেছেন। তিনি কি প্রমাণ করতে চান যে তিনি অনুরোধ করেননি। তাহলে কিন্তু প্রমাণ দিয়ে দেবো। কারণ টেলিফোনে যে সংলাপ, এটা তো আর গোপন থাকবে না। এটা বের করা যাবে। ফোনে কথা বলবে এটা কি গোপন রাখা যাবে। এটার রেকর্ড আছে।

কাদের বলেন, এ নিয়ে তাকে ছোট করতে চাই না। তিনি নাকি এক জায়গায় বলেছেন, কথা বলেননি। তিনি আমার সঙ্গে কথা বলেছেন। সেটার রেকর্ড রয়েছে। আমি আর নিচে যেতে চাই না। উনি নিজেকে কেন নিচে নিয়ে যাচ্ছেন।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, তিনি (ফখরুল) কোনো সিদ্ধান্ত দিতে পারেন না। চিকিৎসকরা বলছেন, তার অবস্থা বার্ধ্যক্যের কারণে যে অবস্থানে থাকার কথা, সেই অবস্থানে তার শারীরিক অবস্থা রয়েছে। কিন্তু ফখরুল সাহেব একবার বলেন তার অবস্থা খারাপ, আবার বলেন মানবিক কারণে মুক্তি দেওয়ার কথা।

খালেদা জিয়ার প্যারোলে মুক্তি সরকারের হাতে নেই জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, খলেদা জিয়ার মামলা দুর্নীতির মামলা। সরকার কীভাবে মুক্তি দেবে? যদি রাজনৈতিক মামলা হতো তাহলে রাজনৈতিক বিবেচনায় মুক্তির প্রশ্ন ছিল?

খুলনা বিভাগীয় এই যৌথ সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বাহা উদ্দীন নাসিম, বিএম মোজাম্মেল হক, অসিম কুমার উকিল, খুলনার মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, বিপ্লব বড়ুয়াসহ আওয়ামী লীগের জাতীয় ও জেলা পর্যায়ে নেতারা।

বিজনেস আওয়ার/১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে