করোনাভাইরাস লাইভ আপডেট
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
৪৯
১৯
বিশ্বজুড়ে
দেশ
আক্রান্ত
মৃত্যু
১৭৭
৭৪১০৩০
৩৫১১৪

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০, ১৭ চৈত্র ১৪২৬


দৃশ্যমান হলো পদ্মাসেতুর ৩৭৫০ মিটার

০৪:০১পিএম, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে ২৯ ও ৩০ নম্বর পিলারের ওপর বসেছে পদ্মাসেতুর ২৫তম স্প্যান। এর মাধ্যমে স্বপ্নের সেতুর তিন হাজার ৭৫০ মিটার (পৌনে ৪ কিলোমিটার) দৃশ্যমান হলো।

শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ৩টার দিকে '৫-ই' আইডি নম্বরের স্প্যানটি বসানো হয়। ২৪তম স্প্যান বসানোর ১০ দিন পর বসানো হলো ২৫তম স্প্যানটি। ৪১ টি স্প্যানের মধ্যে এখন বাকি রইল ১৬ স্প্যান।

পদ্মাসেতুর সহকারী প্রকৌশলী হুমায়ুন কবীর জানান, ৫-ই স্প্যান স্থায়ীভাবে ২৯-৩০ নম্বর পিয়ারের উপর বসানো হয়। মোট ৪১টি স্প্যানের মধ্যে ২৫টি বসানো সম্পন্ন হলো।

এর আগে সকাল সাড়ে নয়টার দিকে মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের মাওয়ার কন্সট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে তিয়ান-ই ক্রেনে করে ২৫তম স্প্যান ২৯ ও ৩০ নম্বর পিয়ারের কাছে নেওয়া হয়।

৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের সেতুটি দ্বিতল হবে, যার ওপর দিয়ে সড়কপথ ও নিচের অংশে থাকবে রেলপথ। ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মাসেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হয়।

মূল সেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) ও নদীশাসনের কাজ করছে চীনের আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো কর্পোরশন।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের জুলাই মাস নাগাদ সকল স্প্যান বসানো শেষ হয়ে যাবে এবং আগামী বছরের জুলাই মাস নাগাদ পদ্মা সেতুর ওপর দিয়ে যান চলাচল করবে।

পুরো সেতুতে মোট পিলারের সংখ্যা ৪২ টি। একটি থেকে আরেকটি পিলারের দূরত্ব ১৫০ মিটার। এই দূরত্বের লম্বা ইস্পাতের কাঠামো বা স্প্যান জোড়া দিয়েই সেতু নির্মিত হচ্ছে। ৪২টি পিলারের ওপর ৪১টি স্প্যান বসানো হবে।

এদিকে, জাজিরা প্রান্তে দুটি পিয়ার ২৬ ও ২৭ কাজ বাকি আছে। আর মাওয়া প্রান্তে ৬, ৭, ৮, ৯ চারটি পিলারের কাজ শেষ। বাকি রয়েছে ১০ ও ১১। চলতি মাসে ১১ নম্বর পিলারে ক্যাপ বসবে।

এরপর আগামী মাসে ১০ নম্বর পিলারে ক্যাপ বসানো হবে। আর মাওয়া প্রান্তে ১৩ থেকে ১৯ নম্বর পিলারে রোডওয়ে ও রেলওয়ে স্লাব বসানো চলছে।

বিজনেস আওয়ার/২১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে