ঢাকা, রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০, ১৪ চৈত্র ১৪২৬


পাপিয়ার নতুন ভিডিও ভাইরাল (ভিডিও)

০৫:২৫পিএম, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : সদ্য বহিষ্কৃত যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীমা নূর পাপিয়া ওরফে পিউ কাণ্ডে তোলপাড় সারাদেশ। বেরিয়ে আসছে অনেক রথী-মহারথীর নাম।আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদে একাধিক মোবাইল ফোনের কললিস্ট, কলরেকর্ড, ভিডিও ক্লিপস ও ছবির সূত্রে শত শত নারী-পুরুষের সম্পৃক্ততার হদিস মিলেছে।

এছাড়া সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল একের পর এক পাপিয়ার ছবি আর ভিডিও। সম্প্রতি তার এক মিনিট ১০ সেকেন্ডের একটি ভিডিও ফাঁস হয়েছে, যেটা মুহূর্তেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়।

ভিডিওটিতে দেখা যায়, একটি কক্ষে খাটের ওপর বসে আছেন পাপিয়া। মাথা ঘাড়ের সঙ্গে চেপে মোবাইলে কারো সঙ্গে কথা বলছেন। একই সময় ডান হাত দিয়ে ব্লেড ধরে নিজের বাঁ হাতের উপর অনবরত কাটছেন তিনি। এর মাঝে ব্লেডও পরিবর্তন করেন। এসময় কাটা হাত দিয়ে রক্ত বের হতে দেখা যায়।

ভিডিওটিতে আরো দেখা যায়, একসময় মোবাইল রেখে তায়িবা নামে একজনকে ডেকে ব্যান্ডেজ দিতে বলেন। ড্রয়ারে রাখা ব্যান্ডেজের খোঁজ করতে বলেন পাপিয়া। তায়িবা তার সহযোগী। তাকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। এছাড়াও উদ্ধার করা হয়েছে শতাধিক ভিডিও।

একটি টিকটক ভিডিওতে দেখায় দেখা যায়, পিস্তল হাতে পাপিয়া এক যুবককে টার্গেটে রেখে গুলি করার অভিনয় করছেন। এ ছাড়া তার অশ্লীল অঙ্গভঙ্গির ভিডিও রয়েছে, যা খতিয়ে দেখছেনতদন্ত কর্মকর্তারা। অভিজাত হোটেলের সুইমিংপুলে ৫-৬ যুবতী নিয়ে পাপিয়ার নাচ দেখা গেছে একটি ভিডিও ক্লিপে। এসব কিছুই খতিয়ে দেখছেন তদন্ত কর্মকর্তারা।

এক শীর্ষ নেতার ছত্রছায়ায় থেকে পদপদবি ভাগিয়ে নেন বহিষ্কৃত মহিলা যুবলীগ নেত্রী শামীমা নূর পাপিয়া। সেই শীর্ষ নেতার হাত ধরেই দীর্ঘদিন ধরে দেহব্যবসা, অস্ত্র-মাদক ব্যবসা করে সম্পদের পাহাড় গড়ে তুলেছেন তিনি। হোটেল ওয়েস্টিনে 'প্রেসিডেন্ট স্যুট' ভাড়া নিয়ে অসামাজিক কার্যকলাপ চালাতেন পাপিয়া।

তদন্ত সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, মতার বিডি স্কট সার্ভিস লিমিটেড নামে একটি নেটওয়ার্ক আছে। তাতে বিদেশী সুন্দরী তরুণীরাও আছে। এদের দিয়ে মনোরঞ্জন করে মন যুগিয়েছেন ওপরওয়ালাদের। সরকারের বেশ কয়েকজন প্রভাবশালী মন্ত্রী, এমপি ও ব্যবসায়ীর সাথে যোগাযোগ ছিল তার।

যুব মহিলা লীগের বিতর্কিত নেত্রী শামীমা নূর পাপিয়া ওরফে পিউ র্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে অনেক চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ করেছেন। এই দম্পতি ঢাকা ও নরসিংদীতে অবৈধ কাজ-কারবারের বিশাল নেটওয়ার্ক গড়ে তোলেন।

বিজনেস আওয়ার/২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে