করোনাভাইরাস লাইভ আপডেট
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
১৬৪
৩৩
১৭
সূত্র:আইইডিসিআর
বিশ্বজুড়ে
দেশ
আক্রান্ত
মৃত্যু
২১১
১৩,৪৯,৮৭৭
৭৪,৮২০
সূত্র: জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটি ও অন্যান্য।

ঢাকা, বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০, ২৪ চৈত্র ১৪২৬


'মুজিব বর্ষ নিয়ে আওয়ামী লীগ রাজনীতি করছে'

০৩:০১পিএম, ১৫ মার্চ ২০২০

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : মুজিব বর্ষ যদি জাতীয় অনুষ্ঠান হয়ে থাকে, তাহলে সে অনুষ্ঠানে খালেদা জিয়া থাকতে পারতেন না? যত মুক্তিযোদ্ধা আছেন, তারা থাকতে পারতেন না? বিএনপিসহ বিরোধী দলীয় নেতা যারা জেলে আছেন, তারা থাকতে পারতেন না? তার একটারও ব্যবস্থা করা হয়নি। সুতরাং মুজিব বর্ষ নিয়ে আওয়ামী লীগ রাজনীতি করছে। বললেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।

শুক্রবার ( ১৩ মার্চ) সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে 'করোনাভাইরাস: বাংলাদেশ এবং আন্তর্জাতিক পরিস্থিতি' শীর্ষক মুক্ত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

করোনাভাইরাস প্রসঙ্গে মান্না বলেন, আমরা নতুন একটি বৈশ্বিক দুর্যোগের মধ্যে রয়েছি। আমাদের দেশে যে ধরনের সহযোগিতা দরকার হয়, আমাদের পক্ষ থেকে করব। কিন্তু সমস্যা তো গভীর এবং সমস্যার ব্যাপারে বিস্তারিত আমরা কেউই জানি না। আমাদের প্রধানমন্ত্রী গতকাল বলেছেন, বাংলাদেশে মহামারির মত সংকট নেই। তবে এ রোগ যদি মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ে, সে সংকট মোকাবিলা করার মতো ক্ষমতা সরকারের নেই। এজন্য আমরা চিন্তিত।

নিজে সচেতন থাকাই ভালো উল্লেখ করে তিনি বলেন, করোনাভাইরাস নিয়ে সরকার এতই যখন সচেতন, তাহলে হেক্সিসল পাওয়া যায় না কেন? যে কোনো সময় হাত ধোয়া যায়, সে জাতীয় লিকুইড ক্যামিকেল একটিও বাজারে নাই। সরকার এ বিষয়ে কিছু করতে পারল না।

সরকার ডেঙ্গু থেকে আমাদের রক্ষা করতে পারেনি। করোনা থেকে আমাদের রক্ষা করতে পারবে না। ওরা ভোট নিয়ে মিথ্যাচার করে। ওরা মানুষের জীবনের কোনো মূল্য দেয় না। এখন করোনা নিয়ে রাজনীতি করছে, করোনা থেকে মানুষকে রক্ষা করার চেষ্টা করছে না।

আন্তরিকভাবে আমরা চাই, করোনাভাইরাস যাতে আমাদের দেশে মহামারি আকারে ছড়িয়ে না পড়ে। একই সঙ্গে করোনা আক্রান্ত হয়ে মানুষ মারা গেলে যেমন আমরা কষ্ট পাব, ঠিক তেমনি বিনা চিকিৎসায় খালেদা জিয়া মারা গেলেও আমরা ক্ষুব্ধ হব, যোগ করেন মান্না।

তার প্রশ্ন, বাংলাদেশের করোনাভাইরাসের রোগী থাকার কথা ৮ তারিখে জানানো হয়েছে। ৮ তারিখে ঘোষণা দিয়ছেন, সেই রোগী তারা কবে শনাক্ত করেছেন? যারা আক্রান্ত হয়েছেন, তাদের একজন ২৬ তারিখে এয়ারপোর্ট দিয়ে বাংলাদেশ প্রবেশ করেছেন। উনি কি সেদিন শনাক্ত হয়েছেন? যদি হয়ে থাকেন, তাহলে ২৭ বা ২৮ তারিখে বলা হলো না কেন? তার কথা ৮ তারিখে বলা হলো কেন?

দ্বিতীয় যে যাত্রী শনাক্ত হয়েছেন, তিনি কবে ইতালি থেকে ফিরেছেন? তিনি কি এয়ারপোর্টে শনাক্ত হয়েছেন? না হলে কোথায় শনাক্ত হলেন? সারা বাংলাদেশের মধ্যে একমাত্র মহাখালী ছাড়া কোথায় শনাক্ত করার জায়গা আছে?

বাংলাদেশ ৩ জন ব্যতীত করোনায় আক্রান্ত আর কেউ নেই প্রধানমন্ত্রীর এমন বক্তব্য প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বাংলাদেশে যে আর কোনো করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী নেই সেই নিশ্চয়তা আপনি কিভাবে পেয়েছেন? মোদির বক্তৃতা হয়ে যাওয়ার পরে কি হবে সেটা কে জানে?

বাংলাদেশ নাগরিক অধিকার আন্দোলনের চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান পলাশের সভাপতিত্বে এ আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল প্রমুখ।

বিজনেস আওয়ার/১৫ মার্চ, ২০২০/এ

এই বিভাগের অন্যান্য খবর

উপরে