sristymultimedia.com

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ৩০ কার্তিক ১৪২৬

প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমানের ক্রটি

কারও দোষ নেই: অব্যাহতির আবেদন

১২:০৮এএম, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৭

বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটির ঘটনায় দায়ের করা মামলার আসামিদের দোষ না পেয়ে অব্যাহতির আবেদন করেছে পুলিশ।

মামলার ১১ আসামির সবাইকে অব্যাহতি দেওয়ার আবেদন করা হয়েছে প্রতিবদনে জানান, আদালত পুলিশের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা উপ-পরির্দশক এস এম মনিরুজ্জামান মণ্ডল ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার মাহবুবুল আলম
ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে এই তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছেন।

এ ঘটনায় নয়জন কর্মকর্তাকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছিল বিমান কর্তৃপক্ষ। পরে তদন্তে গিয়ে আরও দুজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

ত্রুটির কারণে জরুরি অবতরণের পর তুর্কমেনিস্তানের আশখাবাত বিমানবন্দরে বিমানের বোয়িং উড়োজাহাজটি ত্রুটির কারণে জরুরি অবতরণের পর তুর্কমেনিস্তানের আশখাবাত বিমানবন্দরে বিমানের বোয়িং উড়োজাহাজটি আসামিরা হলেন- বিমানের প্রধান প্রকৌশলী (প্রডাকশন) দেবেশ চৌধুরী, প্রধান প্রকৌশলী (কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স) এসএ সিদ্দিক ও প্রধান প্রকৌশলী (মেইনটেন্যান্স অ্যান্ড সিস্টেম কন্ট্রোল) বিল্লাল হোসেন, বিমানের প্রকৌশলী (ইঞ্জিনিয়ারিং অফিসার) নাজমুল হক, প্রকৌশল কর্মকর্তা এসএম রোকনুজ্জামান, সামিউল হক, লুৎফর রহমান, মিলন চন্দ্র বিশ্বাস, জাকির হোসাইন, টেকনিশিয়ান সিদ্দিকুর রহমান ও কনিষ্ঠ টেকনিশিয়ান শাহ আলম।
এই কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সবাইকে সাময়িকভাবে চাকরিচ্যুত করা হয়েছিল।

সন্ধ্যায় প্রতিবেদনটি জমা পড়ায় কোনো বিচারকের কাছে উপস্থাপন করা সম্ভব হয়নি বলে জানান তিনি।

আগামী ১১ ডিসেম্বর এই মামলার প্রতিবেদন আদালতে দাখিলের দিন রয়েছে।

গত বছরের ২৭ নভেম্বর হাঙ্গেরি যাওয়ার পথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৭৭ বিমান যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে তুর্কমেনিস্তানের রাজধানী আশখাবাতে জরুরি অবতরণ করে। ত্রুটি মেরামত করে সেখানে চার ঘণ্টা অনির্ধারিত যাত্রাবিরতির পর ওই উড়োজাহাজেই প্রধানমন্ত্রী বুদাপেস্টে পৌঁছান।

বিজনেস আওয়ার/এন

উপরে