sristymultimedia.com

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬


২২২ কোটি টাকার মাদক ধ্বংস

০৮:১৭পিএম, ০৯ ডিসেম্বর ২০১৭

বিজনেস আওয়ারঃ কক্সবাজারের টেকনাফে প্রায় ২২২ কোটি টাকার মাদক দ্রব্য ধ্বংস করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ-বিজিবি। আজ শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে টেকনাফ ২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের সদর দপ্তর মাঠে এসব মাদক ধ্বংস করা হয়।

টেকনাফ বিজিবি সূত্রে জানা যায়, গত এপ্রিল থেকে অক্টোবর পর্যন্ত টেকনাফ সীমান্তের বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে আসা মালিকবিহীন ইয়াবা বড়ি, মদ ও সিগারেট উদ্ধার করা হয়। ধ্বংস করা এসব মাদকের বাজার মূল্য ২২১ কোটি ৫৬ লাখ ৯২ হাজার ৫০ টাকা। এর মধ্যে ২১৯ কোটি ৬২ লাখ ৯১ হাজার ৬০০ টাকার ইয়াবা বড়ি ছিল। অন্যান্য মাদকদ্রব্যের মধ্যে ছিল মিয়ানমারের বিভিন্ন প্রকারের মদ ও গাঁজা।

এ সময় সদর দপ্তর মাঠে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সভায় বিজিবির আঞ্চলিক কমান্ডার (কক্সবাজার) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এএসএম আনিসুল হক বলেন, সীমান্তের নিরাপত্তা বজায় রাখাই বিজিবির প্রধান দায়িত্ব। কিন্তু বর্তমানে আরও অনেক কিছুই করতে হচ্ছে। দিন-রাত পরিশ্রম করে বিজিবির জওয়ানেরা ইয়াবা, চোরাচালান, অবৈধ অনুপ্রবেশ প্রতিরোধসহ বিভিন্ন ধরনের কাজ করছে।

টেকনাফ ২ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল এসএম আরিফুল ইসলাম বলেন, গত ৪ এপ্রিল থেকে ২৪ অক্টোবর পর্যন্ত সীমান্তের বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে পাচারের সময় ইয়াবা বড়ি, মিয়ানমারে তৈরি মদ, বিয়ার, গাঁজা, চোলাই মদসহ বিভিন্ন প্রকারের মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়। আজ সেগুলো ধ্বংস করা হয়।

কক্সবাজারের সেক্টর কমান্ডার কর্নেল মো. রকিবুল হক বলেন, চাহিদা থাকলে পাচার হবেই। কিন্তু প্রতিরোধ করতে এগিয়ে আসতে হবে সবাইকে। এখন শুধু পুরুষই নয়, নারীরাও মাদকে আসক্ত হচ্ছে। তাই নিজের সন্তানদের প্রতি একটু সময় দিয়ে বন্ধুর মতো সময় কাটাতে হবে। আপনার-আমার সন্তান কী করছে, কাদের সঙ্গে মেলামেশা করছে, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

সভায় বিজিবি কর্মকর্তারা ছাড়াও অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন, জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম রাজীব কুমার দেব, কক্সবাজার সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) চাউ লাউ মারমা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. জাহিদ হোসেন ছিদ্দিকীসহ সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

বিজনেস আওয়ার/রিয়াদুল ইসলাম

উপরে