বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদকঃ বুয়েটের শেরেবাংলা হলের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন কান্নায় ভেঙে পড়ে জানান, আবরার তখনও কাতরাইতেছে, জিয়ন বললো, ফেলে রাখ ও নাটক করতেছে।

বুধবার বেলা দেড়টার দিকে ছাত্র বিক্ষোভে অংশ নিয়ে আবরার ফাহাদকে নির্যাতনের বর্ণনা দেন ওই দিনের প্রত্যক্ষদর্শী মহিউদ্দিন। নিষ্ঠুরতার বর্ণনা দিতে গিয়ে কেঁদে ফেলেন তিনি।

মহিউদ্দিন বলেন, 'আমার আছে অনুতাপবোধ। আমি খাইতে বের হইছি, তখন আড়াইটা বাজে। আমি চিন্তাও করতে পারিনি হলে এমন কিছু হইছে। আমার রুমমেটরে বলতেছি মনে হয় মৃগীরোগ, হাসপাতালে নিতে হইবো। জিয়ন ওইখানে বসে বলতেছে, ও নাটক করতাছে। ওরে ওইখানে ফেলে রাখ। নিষ্ঠুরতার লেভেল আছেরে ভাই! আমি তিন রাত খাইতে পারি নাই। আমি ওরে বাঁচাতে পারি নাই। আমারে মাফ কইরাদিস ভাই। আমি তোরে রাইখা ওই অবস্থায় খাইতে চলে আসছি।'

বিজনেস আওয়ার/৯ অক্টোবর, ২০১৯/আর