বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখা বাড়িটিতে অভিযান শুরু করেছে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট। সোমবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টার দিকে ঢাকা থেকে বোম্ব ডিস্পোজাল ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছার পর এ অভিযান শুরু হয়।

পুলিশ বলছে, বাড়িটিতে বোমা তৈরি করা হয়। সেখানে বোমা ও বোমা তৈরির সরঞ্জাম রয়েছে। বোম্ব ডিস্পোজাল ইউনিট রোবটের মাধ্যমে বাড়িটি পর্যবেক্ষণ শুরু করেছে।

এর আগে সোমবার ভোররাত থেকে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের সদস্যরা তক্কার মাঠ এলাকার জয়নাল আবেদীনের ওই বাড়িটি ঘিরে রাখে। এ সময় ওই বাড়ি থেকে সন্দেহভাজন তিনজনকে আটক করা হয়। তারা হলেন- বাড়ির মালিক ব্যাংক কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীনের দুই ছেলে ফরিদ উদ্দীন (২৭) ও জামাল উদ্দীন (২৩) এবং ফরিদ উদ্দীনের স্ত্রী জান্নাতুল ফোয়ারা অনু (২৭)।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আসলাম হোসেন জানান, জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ফতুল্লার তক্কার মক্কার মাঠ এলাকার জয়নাল আবেদীনের বাড়ি ঘিরে অভিযান চালাচ্ছে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের সদস্যরা। জেলা পুলিশের সদস্যরা তাদের সহযোগিতা করছে।

পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম বলেন, এ বাড়িটিতে বিস্ফোরণ ও বোমা তৈরির কিছু সরঞ্জাম রয়েছে যা বিগত সময়ে ঢাকায় যেসব বিস্ফোরণে উদ্ধার করা হয়েছে তার সঙ্গে মিল রয়েছে। মূলত এ বাড়িতে তারা ছিল না। পাশের একটি বাসা থেকে রুমি নামে একজনকে আটক করা হয়েছে। আর তার স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নেওয়া হয়েছে। পরে বিস্তারিত জানানো হবে।

মনিরুল ইসলাম বলেন, এখান থেকে যারা আটক হয়েছে তারা মূলত নব্য জেএমবির সদস্য। অভিযোগের ভিত্তিতে জামাল উদ্দীন রফিককে ঢাকা থেকে আটক করা হয়। পরে জঙ্গি আস্তানা থেকে তার ভাই ও ভাবিকে আটক করা হয়।

জেলা পুলিশের মুখপাত্র সাজ্জাদ রুমন জানান, ওই বাড়িতে কোনো ধরনের বিস্ফোরকদ্রব্য আছে কিনা তা জানতে ও থাকলে নিষ্ক্রিয়করণে বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট আনা হয়।এখন ওই বাড়িতে বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটের সদস্যরা অভিযান শুরু করেছেন। এদিকে ওই বাড়ির আশ-পাশের ১৭টি বাড়ির লোকজনদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে তাদের বাড়িতে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

বিজনেস আওয়ার/২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯/এ