বিজনেস আওয়ার প্রতিবেদক : শেয়ারবাজারের সংকট নিরসনে একগুচ্ছ সমস্যা চিহ্নিত করা হয়েছে। এসব সমস্যার তথ্য উপাত্ত নিয়ে পরবর্তীতে একটি বৈঠক করা হবে, সেখানে সেগুলো সমাধানের বিষয়ে আলোচনা করা হবে। মঙ্গলবার (১৫ অক্টবার) ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সঙ্গে ডিএসই ব্রোকারস অ্যাসোসিয়েশন (ডিবিএ) এবং শীর্ষ ব্রোকারেজ প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে এসব সমস্যা চিহ্নিত করা হয়েছে।

বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘ দিন ধরে শেয়ারবাজারে পতন অব্যাহত রয়েছে। যদিও আজ সূচকের বড় ধরনের উত্থান হয়েছে। স্থিতিশীল শেয়ারবাজারের লক্ষ্যে পতনের কারণ খুজতে স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে বসে ডিএসই। বিগত দিনে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) আসা কোম্পানিগুলোর দর তলানিতে নেমে গেছে। এসব কোম্পানির মান নিয়ে বৈঠকে প্রশ্ন উঠেছে। এসব কোম্পানি বাজারে আসার আগে আর্থিক প্রতিবেদন ফুলিয়ে ফাপিয়ে দেখালেও তালিকাভুক্তির পর তাদের প্রকৃত চিত্র উঠে আসছে। এসব কারণে বাজারে বড় ধরনের প্রভাব পড়েছে, বিনিয়োগকারীরা বাজারের প্রতি আস্থা হারাচ্ছে। এভাবে বাজারে পতন দীর্ঘায়িত হচ্ছে।

এদিন তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর আর্থিক প্রতিবেদনে আরও সচ্ছতা আনার দাবি তুলা হয় বৈঠকে। এর মাধ্যমে সুশাসন নিশ্চিত করার গুরুত্বারোপ করা হয় বৈঠকে। তাছাড়া ডিএসইকে বার বার ব্যর্থ বলে মন্তব্য করার কারণেও বিনিয়োগকারীদের মধ্যে এক ধরনের আস্থার সংকট সৃষ্টি হচ্ছে বলেও আলোচনা হয়েছে। বৈঠকে ব্রোকারেজ হাউজের প্রতিনিধিরা তাদের শাখা বাড়ানোর বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন।

বৈঠকের উপস্থিত ছিলেন ব্রোকারেজ হাউজের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ‘বিজনেস আওয়ার২৪ ডটকম'কে বলেন, প্রতিদিন সূচক পতনের ফলে বাজারে আস্থার সংকট তলানিতে নেমে গেছে। আর এ পরিস্থিতিতে ডিএসই বৈঠক ডেকেছে। বৈঠকে বাজারের সংকটের নানা কারণ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তবে এসব কারণগুলোর তথ্য উপাত্ত নিয়ে আরো একটি বৈঠক হবে। ওই বৈঠকে বাজার সংকটের সমস্যাগুলো মোটা দাগে আলোচনা করা হবে। যা হবে তথ্য উপাত্ত ভিত্তিক। একই সঙ্গে পরবর্তী বৈঠকে সমস্যাগুলো সমাধানের উপায়ও খুজে বের করা হবে। এরপর একটি প্রস্তাবনা দেওয়া হবে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের নিকট।

বিজনেস আওয়ার/১৫ অক্টোবর, ২০১৯/আরএ